ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রাঙামাটিতে কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

নুরুল আলম:: রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) বেলা ১২টায় উপজেলা সদরে ৫টি ইউনিয়নের ৮০০ কৃষকের মাঝে ২কেজি করে বোরো ধানের হাইব্রিড বীজ বিতরণ করা হয়।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মফিজুল হক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন উপস্থিত থেকে কৃষকদের হতে কৃষি উপকরণ তুলে দেন। এসময় উপজেলা কৃষি অফিসার ইমরান আহমেদ, চিৎমরম ইউনিয়ন ইউপি চেয়ারম্যান ওয়েশ্লিমং চৌধুরীসহ উপকারভোগী কৃষক এবং উপ-সহকারী কৃষি অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সহায়তায় কাপ্তাই উপজেলার ১০০ কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সূর্যমুখী বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) সকাল ১০টায় কৃষি বিভাগ চত্বরে কৃষকের মাঝে ১ কেজি হাইব্রিড সূর্যমুখী বীজ, ১০ কেজি জিপসাম সার ও ৫ কেজি ডিএপি সার বিতরণ করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করে কৃষি অফিসার মো. ইমরাম আহমেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও কৃষি কমিটির আহবায়ক অংসুইছাইন চৌধুরী। এসময় বিভিন্ন ইউনিয়নের উপকারভোগী কৃষক-কৃষাণী এবং কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।

লংগদুতে ১৭০০ জন প্রান্তিক কৃষক পেলো কৃষি উপকরণ
চলতি বোরো মৌসুমে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় ১৭০০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক পেলো কৃষি উপকরণ। লংগদু উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় প্রতিজন কৃষককে ২ কেজি হারে বোরো ধান বীজ (হাইব্রিড) দেয়া হয়েছে।

বুধবার (২২ নভেম্বর) লংগদু উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কার্যালয়ে এ কৃষি প্রণোদনা বিতরণ করা হয়। রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য আছমা বেগম, লংগদু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ঝান্টু চৌধুরী এই কৃষি প্রণোদনা বিতরণ করেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. জাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা রতন কুমার চৌধুরীর পরিচালনায় প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্যে অতিথিরা বলেন, দরিদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের সরকারি সহায়তা চলমান রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা অনুযায়ী এক ইঞ্চি জায়গাও যাতে খালি পড়ে না থাকে। আমাদের জলেভাসা জমিগুলোতে বেশির ধান চাষ হয়। এছাড়া অন্যান্য পতিত জমিগুলোতেও সরকারি সহায়তাকে কাজে লাগিয়ে বেশি ফসল ঘরে তুলুন।

রাজস্থলীতে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ
২০২৩-২৪ অর্থবছরে রবি মৌসুমে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সহায়তায় রাজস্থলী উপজেলার ৫০ জন প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সূর্যমুখী বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। এসময় প্রতিজন কৃষককে ১ কেজি হাইব্রিড সূর্যমুখী বীজ, ১০ কেজি জিপসাম সার ও ৫ কেজি ডিএপি সার বিতরণ করা হয়।

বৃহস্পতিবার ( ২৩ নভেম্বর) সকালে রাজস্থলী উপজেলা কৃষি বিভাগ চত্বরে বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও কৃষি কমিটির আহবায়ক নিউচিং মারমা।

উপজেলা কৃষি অফিসার মাহবুব এলাহীর সভাপতিত্বে বিতরণ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ইউনিয়নের উপকারভোগী কৃষক-কৃষাণী এবং কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।

বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নিউচিং মারমা বলেন, জেলা পরিষদের অর্থায়নে পরবর্তীতে সূর্যমুখীর তেল নিষ্কাশন মেশিনের ব্যবস্থা করা হবে।

সভাপতি উপজেলা কৃষি অফিসার বলেন, সূর্যমুখী তেল ভোজ্যতেল হিসেবে খুবই উৎকৃষ্টমানের। সারাদেশের মতো রাজস্থলী উপজেলায় সূর্যমুখী চাষের সুযোগ রয়েছে। বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে উৎপাদিত সূর্যমুখী দেশের ভোজ্যতেলের চাহিদাপূরণের পাশাপাশি পুষ্টি উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

বিতরণকালে উপজেলা পরিষদের চোয়ারম্যান উবাচ মারমা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তনু কুমার দাশ, থানা অফিসার ইনচার্জ জাকির হোসেন, ওসি (তদন্ত) শাহেদ পারভেজ, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আবুল খায়ের, সাংবাদিক আজগর আলী খান, কৃষি অফিসের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪