ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ট্রেনের মালবাহী কনট্রিড লাইনচ্যুত চার সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনের কাছে মালবাহী কন্টেইনার ট্রেনের পিছনের একটি বগি লাইনচ্যুতির কারণে ১২ ঘণ্টা বিঘ্নিত হওয়ার পর রবিবার রাতে চট্টগ্রাম, সিলেট ও নোয়াখালীর সঙ্গে ঢাকার ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। আজ (১৯ নভেম্বর) রাত ৮টার পর রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার মো. জসিম উদ্দিন।

তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, একটি রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে এসে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে লাইনচ্যুত বগিটিকে উদ্ধার করলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হওয়ার পর প্রায় ৫০০ মিটার রেলপথ এবং ১০০টি স্লিপার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় রিলিফ ট্রেনটি ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বিলম্ব হয়।

রেলওয়ের এই কর্মকর্তা আরও জানান, লাইনচ্যুত হওয়ার পর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রেলওয়ে মেরামতকারী দলের সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্ত ট্র্যাক মেরামতে ব্যস্ত ছিলেন। মেরামতের পরপরই রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

এর আগে, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন পার হওয়ার সময় ঢাকাগামী মালবাহী কন্টেইনার ট্রেনের একটি বগির চার চাকা লাইনচ্যুত হয়। ঘটনার পর আপ লাইনে (ঢাকাগামী) ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

এদিকে এ ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটির নেতৃত্বে রয়েছেন ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা (এটিও) মো. সাজিদুল ইসলাম। কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪