ঢাকা, সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিরামপুর সবজি ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা

দিনাজপুর জেলার বিরামপুরে হাবিবুর রহমান ওরফে হিটলার (৪৫) নামের এক সবজি ব্যবসায়ীকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে  দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) দিবাগত রাতে বিরামপুর পৌর চাঁদপুর (চাঁদ মধ্যপাড়া) মহল্লায় এই ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) সকালে বিরামপুর পৌর শহরের  চাঁদপুর (চাঁদপুর মধ্যপাড়া) নিহত সবজি ব্যবসায়ীর বাড়ির দরজার সামনে থেকে গলাকাটা লাশ মরদেহ উদ্ধার করে বিরামপুর থানা পুলিশ।

নিহত হাবিবুর রহমান ওরফে হিটলার বিরামপুর চাঁদপুর (চাঁদ মধ্যপাড়া) মহল্লার ৭নং ওয়ার্ডের মৃত মনছের আলীর ছেলে। তিনি প্রায় ১২ বছর আগে বিরামপুর উপজেলার ৪নং দিওড় ইউনিয়নের কেন্দুয়া গ্রাম থেকে এসে বিরামপুরের চাঁদপুর মহল্লায় বাড়ি করেন। তারপর থেকেই তিনি স্বপরিবারে ওই বাড়িতেই বসবাস করে আসছিলেন। তিনি বিরামপুর পৌর শহরের চাঁদপুর মহল্লার কলেজ বাজারস্থ বটতলী এলাকায় সবজির ব্যবসা করতেন। তাঁর স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে আছে। দুই মেয়ে বড়  ও একমাত্র ছেলে আব্দুল্লাহ আল ফাহাদ (১০) সবার ছোট।

পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি তদন্ত মমিনুল ইসলাম জানান, বুধবার (১৮ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১২টায় দিকে হাবিবুর রহমান ওরফে হিটলার প্রতিদিনের ন্যায় দোকানের কাজ শেষে বাড়ি ফেরেন। গতকাল বুধবার (১৮ অক্টোবর) রাতেও হিটলার সবজির দোকান থেকে বাড়ি ফিরে গরুকে খাবার দিয়ে হিটলার নিজেও রাতের খাবার খান। খাবার শেষে সিগারেট টানার জন্য বাড়ির বাইরে যান। আজ বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) ভোরে হাবিবুর রহমান ওরফে হিটলারের স্ত্রী ঘুম থেকে জেগে ওঠে স্বামীকে দেখতে না পেয়ে বাড়ির দরজা খুলতে গিয়ে দেখেন, দরজা বাহির থেকে বন্ধ। পরে তাঁর ছেলে আব্দুল্লাহ আল ফাহাদ (১০) বাড়ির দেয়াল টপকে বাড়ির বাইরে গিয়ে দরজার সামনে বাবার গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার দেয়। খবর পেয়ে বিরামপুর পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে হিটলারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। সম্ভবত দুর্বৃত্তরা তাঁকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় নিহত হাবিবুর রহমান ওরফে হিটলারের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪