ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পুলিশের সঙ্গে চা খেতে এসে গ্রেফতার কথিত ‘সিনিয়র সহকারী সচিব ‘

সিনিয়র সহকারী সচিব পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে মো. রফিকুল হক মিঞা (২৮) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে মিরপুর থানা পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মিরপুর থানার পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনারের (মিরপুর জোন) অফিসে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার ( ১৭ নভেম্বর ) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন।

তিনি বলেন, প্রতারক রফিক মিরপুর মধ্য পীরেরবাগ এলাকার মো. শামছুল হক মিঞার ছেলে। তিনি বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। কিন্তু নিজেকে তিনি পরিচয় দেন সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে। ৩৫ তম বিসিএস পাশ করে তিনি বর্তমানে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারে উপ পরিচালক পদে আছেন বলেও দাবি করেন।

ওসি মহসীন আরও বলেন, রফিক এমটিএমসির পরিচালক পরিচয়ে ভিজিটিং কার্ডও বানিয়েছেন। থানায় কোন প্রয়োজন হলে তার ভিজিটিং কার্ড দেখালে ‘কাজ হয়ে যাবে’ বলে সবাইকে আশ্বস্ত করেন। তার এমন কথা বিশ্বাস করেই গতকাল রাতে সেই ভিজিটিং কার্ড নিয়ে মিরপুর জোনের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মাসুক মিয়ার কাছে আসেন আনু মিয়া নামের এক ব্যক্তি। কার্ড দেখে রফিকের পরিচয় নিয়ে সন্দেহ হলে তাকে চা খাওয়ার দাওয়াত দিয়ে অতিরিক্ত উপ কমিশনারের অফিসে ডাকা হয়। আসার পর তার পরিচয়, কর্মস্থলসহ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি অসংলগ্ন কথা বলা শুরু করেন। পরে তার কথিত কর্মস্থলে যোগাযোগ করা হলে তারা এই নামে কেউ নেই বলে জানান। এক পর্যায়ে রফিক মিথ্যা পরিচয়ে প্রতারণার কথা স্বীকার করেন। গ্রেফতার রফিকের বিরুদ্ধে মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজিবুর রহমান বাদী হয়ে প্রতারণা ও সরকারি কর্মকর্তার মিথ্যা পরিচয় দেওয়ায় মামলা করেছেন। এই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডিআই/এসকে

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪