ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঝিনাইগাতী সদর বাজারটি যানজটে পরিণতঃ ভোগান্তিতে পথচারীরা

শেরপুরের সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী উপজেলা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর। ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পাদদেশে গারো পাহাড়ের কুলঘেষে এ উপজেলার অবস্হান। গজনী অবকাশ বিনোদন কেন্দ্র উপভোগ করার জন্য প্রতিবছর নভেম্বর মাস থেকে শুরু হয়ে মার্চ মাস পর্যন্ত প্রতিদিন প্রায় চার পাঁচশো বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের আগমন ঘটে।

এসব গাড়ীতে করে গজনী অবকাশ বিনোদন কেন্দ্রে শিক্ষা সফর ও আনন্দ ভ্রমণে আসে ভ্রমণ পিপাসুরা। আর এসব গাড়ীগুলো সদর বাজারের উপর দিয়েই যেতে হয় গজনী অবকাশ পর্যটন কেন্দ্রে। কিন্তু চলাচলকারী যানবাহনের তুলনায় এবাজারের প্রধান সড়কের তেমন কোন উন্নয়ন করা হয়নি বলে জানান স্থানীয় ব্যাবসায়ীরা। এমনিতেই রাস্তাটির প্রস্ত কম, আবার মরার উপরে খাড়ার ঘা। রাস্তার উভয় পাশে অনিয়ন্ত্রিত ভাবে সারিবদ্ধ ভাবে পার্কিং করা হয় অটোরিকসা।

তাছাড়া কিছু অস্থায়ী ব্যাবসায়ীরা রাস্তার দুই পাশের ফুটপাত দখল করে লাকরি, নার্সারীর চারা, বাশেঁর তৈরি জিনিসপত্র বেচাকেনার করার কারনে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়। একটা বাস কিম্বা ট্রাক বাজার অতিক্রম করার সময় দোকানীদের মালামাল সরিয়ে অন্য একটি গাড়ী ক্রসিং করতে হয়।

এতে সবসময় যানজট লেগে থাকা প্রতিদিনের ঘটনা। স্থায়ী ব্যবসায়ীদের দাবি মেইন রোডের ফুটপাত দখলকারী অস্থায়ী দোকান এবং সারিবদ্ধ ভাবে দাড়িয়ে থাকা অটোরিকশা গুলো সরিয়ে নির্ধারিত স্থানে পার্কিং করার ব্যাবস্থা নেওয়া হলে যানজট কিছুটা নিরসন হতে পারে। এবিষয়ে ঝিনাইগাতী ক্ষুদ্র বনিক সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক, মো; ফারুক আহমেদ বলেন, নিয়ন্ত্রণহীন অটোরিকসা রাস্তার দুই পাশে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকার কারণে প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হয়। এবং রাস্তার দুই পাশে অস্থায়ী দোকানপাট বসানোর কারণে পথচারীসহ আগত ক্রেতাদের প্রতিদিন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। ফারুক আহমেদ আরও বলেন যেহেতু এখন গজনী অবকাশ পর্যটন কেন্দ্রে দর্শনার্থীদের আগমনের সময় হয়েছে সেহেতু

বাজারের মেইন রোড যানযট মুক্ত করা জরুরি হয়ে পরেছে। খৈলকুড়া মসজিদ হতে উপজেলা পরিষদ পর্যন্ত যানজট মুক্ত করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। রাস্তার উপর কোন প্রকার যানবাহন পাকিং না করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল। একাধিক ব্যবসায়ীরা জানান দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে ক্রেতা বিক্রেতার আগমন ঘটে ঝিনাগাতী বাজারে।

দুরদুরান্তের পাইকাররা কাঁচামাল কিনে যানজটের কবলে পরে ঘন্টার পর ঘন্টা ব্যাস্ত সময় পার করেন ব্যবসায়িরা। তাই ঝিনাইগাতী বাজারের মসজিদ রোডসহ মেইন রোডটি যানজট মুক্ত করার জন্য প্রশাসনের উর্ধতন কতৃপক্ষ ও সচেতন মহলের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী জনসাধারণ।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪