ঢাকা, সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঘোড়াঘাটে চালককে হত্যা করে ভ্যান ছিনতাই

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ধানক্ষেত থেকে হাত পা বাঁধা ও গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় মেহেদুল ইসলাম (৫০) নামে এক অটোভ্যান চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ।ভ্যান চালক মেহেদুলকে হাত পা বেঁধে অটোভ্যানটি নিয়ে যায় দুবৃত্তরা। নিহত ভ্যান চালক উপজেলার আব্দুল্লাহ পাড়ার মৃত মোফাজ্জল হোসেনের পুত্র।
১৭ অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে উপজেলার ৩নং সিংড়া ইউনিয়নের ডাঙ্গা এলাকার কাঁচা রাস্তা সংলগ্ন সাবেক ইউপি সদস্য মোফাজ্জল হোসেনের ধানক্ষেত থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবারের লোকজন এবং স্বজনরা জানান,ভ্যান চালক মেহেদুল ইসলাম (৫০) পরিবারের একমাত্র
উর্পাজনকারী তিনি।উপজেলার রাণীগঞ্জ বাজারের মোঃ রেজওয়ান সরকারের সরকার ক্লাসিক্যাল র্ফানিসারের মালাসাল দিন ও রাতে ভাড়ায় আনা নেয়া করত।
প্রতিদিন মধ্য রাত র্পযন্ত ভ্যান চালিয়ে সংসার চালান মেহেদুল।
নিত্যদিন রাতে বাড়ি ফিরলেও, সোমবার তিনি বাড়িতে যাননি। তিনি প্রতিদিনের ন্যায় ১৬ অক্টোবর সকালের খাবার খেয়ে অটোভ্যান নিয়ে বের হন এবংদুপুরের খাবার খেতে বাড়িতে আসেন। পরে খাবার খেয়ে পুনরায় বের হয়ে যান।
সরকার ক্লাসিক্যাল র্ফানিসারের মালিক মোঃ রেজওয়ান সরকার জানান,রাত ৯টায় দোকান বন্ধ করার পর মেহেদুল ভ্যান নিয়ে চলে যায়।আজ ১৭ অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে তার লাশ সনাক্ত করা হয়।
পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের ধারণা রাতের যে কোনো এক সময় তার হাত পা ও মুখ বেঁধে রাস্তার পাশে ধানক্ষেতে ফেলে রেখে অটোভ্যানটি নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় হাকিমপুর-ঘোড়াঘাট র্সাকেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শরিফুল ইসলাম শরিফ ও ঘোড়াঘাট থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ এবং জেলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই )সদস্য,ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন।
ঘটনাস্থল পরির্দশন শেষে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য
দিনাজপুর র্মগে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান ঘোড়াঘাট থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪