ঢাকা, সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

খাগড়াছড়ি রামগড় ৪৩ বিজিবির দেড় কোটি টাকার মাদক ধ্বংস অভিযান

নুরুল আলম: খাগড়াছড়ির রামগড়স্থ ৪৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের উদ্যোগে বিভিন্ন সীমান্তে জব্দকৃত এক কোটি ৬২ লাখ টাকার বিশাল মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়েছে। শনিবার(৪ নভেম্বর) রামগড়ের পার্শ্ববর্তী ভুজপুরের বাগানবাজার হাই স্কুল মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে এ মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

বিজিবি জানায়, বিভিন্ন সময় রামগড় ৪৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের আওতাধীন ফটিকছড়ি ও মীরেরসরাই উপজেলার সীমান্ত এলাকা থেকে বিভিন্ন প্রকারের এ মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়। ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যের রয়েছে, ৭ হাজার ২৫১ বোতল ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার মদ, ২৬৯ পিচ ভারতীয় বিয়ার ক্যান, এক হাজার ৯২৭ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল, ৯ হাজার ৮৭৮ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ৪০৯ কেজি ৩৬ গ্রাম ভারতীয় গাঁজা, ২০৮ লিটার ভারতীয় চোলাই মদ, ৪০ পিচ টার্গেট ট্যাবলেট, ৪০ পিচ সেনেগ্রা ট্যাবলেট ও ৫০০ পিচ নিম সোলাইড ট্যাবলেট। ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যের মূল্য এক কোটি ৬১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা।

মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আওলাদ হোসাইন মুহাম্মদ জোনাইদ।

রামগড় ৪৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু বকর সিদ্দিক সাইমুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন, বিজিবির গোয়েন্দা ইউনিটের চট্টগ্রাম অঞ্চলের গ্রুপ কমান্ডার লে. কর্নেল মো. সুরুজ মিয়া, বিজিবির দক্ষিন-পূর্ব রিজিয়নের (চট্টগ্রাম) পরিচালক (অপারেশন) লে. কর্নেল মো. সফিকুর রহমান, ৮ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহেদ মিনহাজ, ২৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলমগীর কবির, ৪০ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল ফারাহ্ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আবদুল মালেক, রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ কুমার কারবারি, হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শোয়েব আহম্মেদ খান, রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন, মিরেরসরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজা জেরিন প্রমুখ।

উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা বলেন, রামগড়, ফটিকছড়ি ও কয়লারমুখ মিরাশ্বরাই একটি অংশ সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় এখানো ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে ব্যপক মাদক চোরাই পথে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করে। প্রশাসনের তৎপরতার কারনে তা প্রতিবারই ব্যহত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় জব্দকৃত সকল মাদকদ্রব্য ধ্বংসের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এই অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যহত থাকবে বলে আশা বক্ত্য করেন। পরে যুব সমাজকে মাদকে না বলার পরামর্শ ও মাদক সেবনে বিভিন্ন মারত্মক দিকনিদের্শনা প্রদান করেন।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪