ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কনস্টেবল শাম্মী’র সফলতার গল্প

কঠোর পরিশ্রম, ইচ্ছাশক্তি ও একাগ্রতা একজন মানুষকে বহুদূর নিয়ে যেতে পারে তারই এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কনস্টেবল মোসাম্মাৎ শাম্মী আক্তার ইভা। তিনি এ বছর তার মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের আউট সাইড ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) পদে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন।

শাম্মী আক্তার ইভা সাব-ইন্সপেক্টর পদে নিয়োগ পাওয়ার আগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

তিনি তার ভাগ্যকে গড়ার যুদ্ধে নামেন ২০১৩ সালে। তিনি তখন সবে মাত্র কুষ্টিয়ার হাজী আবুল হোসেন ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি কলেজের ম্যানেজমেন্টে বিবিএ (অনার্স) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। পড়াশুনার পাশাপাশি তিনি ২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে কনস্টেবল পদে বাংলাদেশ পুলিশে যোগ দেন।

কনস্টেবল পদে চাকরি পাওয়ার পর ওইখানেই শেষ হতে পারতো শাম্মীর পরিশ্রমের গল্প। কিন্তু সেখানেই থেমে থাকেননি তিনি। সফল হওয়াই যার সংকল্প, সেই সাথে আছে পরিশ্রম- এই দুটিকে কাজে লাগিয়ে চাকরির পাশাপাশি পড়াশুনাটাও আরো জোর দিয়ে চালিয়ে যেতে থাকেন তিনি। এরপর তার জীবনে আসে সেই মোক্ষম সময়। এ বছর ৪০তম ব্যাচে বাংলাদেশ পুলিশের আউট সাইড ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) নিয়োগ পরীক্ষার সবগুলো ধাপ সফলতার সাথে উত্তীর্ণ হয়ে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন।

শাম্মী আক্তার বলেন,আমি চাকরির পাশাপাশি আমার পড়াশুনাটা গুরুত্ব দিয়ে চালিয়ে যাই। সব সময়ই স্বপ্ন ছিলো ভালো কিছু করার। আজ আমার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

এ বিষয়ে মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. ফারুক হোসেন বলেন, একজন ব্যক্তির জীবনে সফলতার পূর্বশর্ত হচ্ছে উপযুক্ত সময়ে উপযুক্ত কাজটি করা। শাম্মী সেই কাজটি করেছেন। এই বিভাগে কর্মরত থাকা অবস্থায় তার পড়াশুনার জন্য সব ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়েছে। সর্বোপরি তার কঠোর পরিশ্রমের সঠিক ফল তিনি পেয়েছেন। ভবিষ্যতেও তিনি তার সততা ও কর্মস্পৃহা দিয়ে আরো বহুদূর এগিয়ে যাবেন এই প্রত্যাশা করি।

ডিআই/এসকে

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪