ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আমতলীতে মা ইলিশ সংরক্ষন অভিযান চলাকালিন ঋনের কিস্তি আদায় বন্দের নির্দেশ

আমতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলীতে মা ইলিশ সংরক্ষেণ ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত,বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধকালীন সময়ে আমতলী উপজেলার জেলেদের কাছ থেকে উপজেলার সকল এনজিও এর ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আশ্রাফুল আলম । সোমবার ১৫ অক্টোবার উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেন। প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করেন ১২ অক্টোবার থেকে ২ নভেম্বর ২০২৩ পর্যন্ত ইলিশ মাছ শিকার আহরন পরিবহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে মা ইলিশ সংরক্ষন অভিযান কার্যক্রম চলমান থাকবে উক্ত সময়ে মৎস্যজীবিগন নদী/সাগরে মাছ আহরন করতে যেতে পারেনা । ফলে তাদের আয় রোজগার বন্দ হয়ে যায়।উক্ত সময়ে তাদের পরিবারের খরচ চালিয়ে ঋনের কিস্তি দেয়া কষ্টকর। তাই উক্ত সময়ে ঋনের কিস্তি আদায় বন্দ রাখার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।
উপজেলা মৎস্য অফিস থেকে জানা যায় প্রজনন মৌসুমে নিরাপদ প্রজননের জন্য (১২ অক্টোবর) থেকে ২২ দিন ২ নভেম্বরের মধ্যরাত পর্যন্ত মা ইলিশকে স্বেচ্ছন্দ্যে ডিম ছাড়ার সুযোগ দিতেই নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ অ্যাক্ট, ১৯৫০’ এর অধীন প্রণীত ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ রুলস, ১৯৮৫’ অনুযায়ী সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।
আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আশ্রাফুল আলম মুঠোফোনে বলেন, সরকার প্রজনন মৌসুমে নিরাপদ প্রজননের জন্য (১২ অক্টোবর) থেকে ২২ দিন ২ নভেম্বরের মধ্যরাত পর্যন্ত মা ইলিশকে স্বেচ্ছন্দ্যে ডিম ছাড়ার সুযোগ দিতেই নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ইলিশ সম্পদ ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করেছে। এসময় জেলেরা বেকার হয়ে পড়ে তাদের রোজগার বন্দ থাকে পরিবারের খরচ চালিয়ে ঋনের কিস্ত দেয়া তাদের জন্য কষ্টকর। তাই নিষিদ্ধকালীন এসময়ে জেলেদের কাছ থেকে ঋনের কিস্তি আদায় বন্দ রাখার জন্য সকল এনজিওকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪