ঢাকা, সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অপহৃত রাসেলকে অক্ষত ফিরিয়ে দিতে আন্দোলনে উত্তাল পাহাড়

নুরুল আলম:: মো: সফিকুল ইসলাম রাসেল(২৭) কে অক্ষত ফিরিয়ে দিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে পাহাড়। এ ঘটনায় বুধবার (২২ নভেম্বর ২০২৩) সকালে খাগড়াছড়ির বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পৌর ঈদগা মাঠ থেকে শাপলা চত্বর ঘরে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাপলা চত্বরে মুল সড়কে অবস্থান নেয়।

এতে বক্তারা বলেন, অভিলম্বে অক্ষত রাসেলকে ফিরিয়ে না দিলে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের নেতৃত্বে তিন পার্বত্য জেলায় কঠোর থেকে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। পাহাড়ে দুস্কৃতিকারীরা এভাবে আর কোন বাঙালিকে অপহরণ করে গুম,মুক্তিপন নিতে দেওয়া হবে না বলে নেতৃবৃন্দরা হুশিয়ারী জানান। অবস্থান ধর্মঘট থেকে আগামী শনিবার বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচী ঘোষনার মধ্য দিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে রাসেলকে ফিরিয়ে দেওয়ার জোর দাবী জানান।

এ সময় পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনের বিভিন্ন কর্মকান্ড নিয়ে প্রশ্ন তোলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের নেতারা। এ সময় শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে রাসেলের মুক্তির দাবী জানিয়ে শহরের মুল পয়েন্ট শাপলা চত্বরে সড়কে অবস্থান ধর্মঘট পালনের পর খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করে সংগঠনটির নেতারা।

পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ (পিসিসিপি) কেন্দ্রীয় সভাপতি মো শাহাদাৎ হোসেন কায়েশ এর সঞ্চালনায় পিসিএনপির খাগড়াছড়ি জেলা সদস্য সচিব মাসুম রানা সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ (পিসিএনপি) কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো আবদুল মজিদ। এতে বক্তব্য রাখেন,পিসিসিপি সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মো আসাদ উল্লাহ,পিসিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য মো নজরুল ইসলাম মাসুদ,পিসিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি সুমন আহমেদ।

এতে উপস্থিত ছিলেন,পিসিএমপি কেন্দ্রীয় সভানেত্রী সালমা আহমেদ মৌ,পিসিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো মেহেদি হাসান,খাগড়াছড়ি জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মো সোহেল রানা,পিসিএনপি সদর উপজেলা সভাপতি এরশাদ হোসেন চৌধুরী,পিসিএনপি দীঘিনালা উপজেলা সভাপতি মো জাহিদ হাসান,পিসিএমপি খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি হাসিনা আক্তার।

চলতি মাসের ৯ নভেম্বর আট মাইল এলাকা থেকে সে নিখোঁজ হয়। বাগান দেখানোর কথা বলে তাকে অপহরণ করা হয়ে থাকতে পারে বলে পরিবার সূত্র জানায়। মুলত বাগান দেখার উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হন গাছ ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম রাসেল। এরপর আর ঘরে না ফেরায় বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজ খবর নেওয়ার এক পর্যায়ে তার পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংঙ্কের চাঁদা দাবী করলে ভাইকে ফিরে পেতে দাবীকৃত অর্থ দেওয়ার পরও রাসেলকে ফিরিয়ে দেয়নি দুস্কৃতকারীরা।

অপহৃত রাসেলকে খাগড়াছড়ির কল্যাণপুরের বাসিন্দা মো. বাচ্চু মিয়ার ৫ ছেলে ১ মেয়ের মধ্যে সে তৃতীয়। সে পেশায় একজন ক্ষুদ্র কাঠ ব্যবসায়ী। গত বৃহস্পতিবার (গত ৯ নভেম্বর ২০২৩) দুপুরের পর তাকে খাগড়াছড়ির আট মাইল এলাকার রুচি চন্দ্র কারবারীপাড়া এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয় তাকে। এর মধ্যে শফিকুলের মোবাইল থেকে ফোন করে প্রায় দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণ নেয়ার পর থেকে আর যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় অপহরণকারীরা।

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪